আওয়ামীলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত-১

সংঘর্ষ-
নিউজ ডেস্ক।।
মাগুরা সদর উপজেলার রুপদহ সুন্দরপুর গ্রামে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নান্নু শেখ (৪৫) নামে একজন নিহত ও কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছে। আজ (বৃহস্পতিবার) সকালে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও হাসপাতালে ভর্তি আহতরা জানান, এলাকার রাজনৈতিক ও সামাজিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে শত্রুজিৎপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জহুর মোল্লার ভাই সহ-সভাপতি সালম হাজির সঙ্গে সাধারণ সম্পাদক ইকলাস সমর্থিত নান্নু শেখের সমর্থকদের বিরোধ চলে আসছে। যা গত ২১ জুলাই অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদের চেয়াম্যান পদে উপ-নির্বাচন নিয়ে চরম আকার ধারণ করে। এ নির্বাচনে সালাম হাজীর সমর্থকরা আওয়ামী লীগ প্রার্থী রুস্তম আলীর ঘোড়া প্রতীকের পক্ষে কাজ করেন। অপরদিকে, নান্নু শেখসহ তার সমর্থকরা জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবু নাসির বাবলুর আনারস প্রতীকের পক্ষ নিয়ে নির্বাচনী কাজে অংশ নেন।

নির্বাচন পরবর্তী সময়ে জয়-পরাজয় নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে নতুন করে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে বৃহস্পতিবার সকালে সালাম হাজির সমর্থকরা নান্নু শেখে ওপর হামলা চালিয়ে তাকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে ও তার সমর্থিত লোকদের বাড়ি ঘরে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর-লুটপাট চালায়। এ ঘটনার পরপরই উভয় পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। এ সময় প্রতিপক্ষের হামলা-পাল্টা হামলায় উভয় পক্ষের ২০ জন আহত হয়। ভাঙচুর লুটপাটের ঘটনা ঘটে ১৫টি ঘর-বাড়িতে। পুলিশ পরিস্থিতি সামলাতে টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে।

আহতদের মধ্যে ১৪ জনকে মাগুরা হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কিছুক্ষণ পর নান্নু শেখের মৃত্যু হয়।বর্তমানে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরবর্তী সংঘাত এড়াতে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
এনডি/বিএম/এনএম/২৩জুলাই,২০১৫ইং।।

মতামত...