খাগড়াছড়িতে ডিসি’র বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা; ডিসি বললেন গুজব

নিজস্ব প্রতিবেদক ।। খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাসের বিরুদ্ধে বাঙ্গালীদের স্থায়ী বাসিন্দার সনদ না দেয়াসহ বিভিন্ন অভিযোগ এনে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ। একইসাথে ভূমি রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়ায় জটিলতা সৃষ্টি ও বৈষম্যমূলক আচরণের মাধ্যমে এখানকার বাঙ্গালিদের হয়রানি করার অভিযোগেও প্রতিবাদ জানান সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

রোবববার দুপুরে সদর উপজেলা পরিষদ এলাকা থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের জেলা শাখার নেতাকর্মীরা। পরে শাপলা চত্ত¡রে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা করে তারা। এতে সংগঠনটির বিভিন্ন উপজেলার নেতৃবৃন্দ অংশ নেন।

এসময় বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, গত ২৯ আগস্ট খাগড়াছড়ির ২৪ তম জেলা প্রশাসক হিসেবে যোগদান করেন প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস। দায়িত্ব নেবার পর থেকেই স্থানীয় বাঙ্গালীদের হয়রানীসহ নানা রকম জটিলতার কথা বলে স্থায়ী বাসিন্দার সনদ দিচ্ছেন না। এমনকি ভূমি রেজিষ্ট্রেশন প্রক্রিয়ায় জটিলতা সৃষ্টির মাধ্যমে বাঙ্গালী ভূমি ক্রেতাদের পাহাড়ে ভূমি ক্রয়ের ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছেন।

আগামী বুধবারের মধ্যে বাঙ্গালীদের স্থায়ী সনদ প্রদানে বৈষম্যমূলক হেডম্যান প্রতিবেদন বাতিল, সম্প্রীতি কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের নিয়োগের সময়সীমা বৃদ্ধি ও ভূমি রেজিস্ট্রেশনে হয়রানি বন্ধের দাবি মানা হলে বৃহস্পতিবারে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ঘেরাওয়ের কর্মসুচি পালনের ঘোষণা দেন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের কেন্দ্রীয় আহবায়ক কমিটির সদস্য ও সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি ইঞ্জি. আব্দুল মজিদ, জেলা কমিটির সভাপতি মো. আসাদুল্লাহ আসাদ, সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহাদাৎ হোসেন কায়েশ প্রমুখ।

এদিকে, পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের সকল অভিযোগ অস্বীকার করেছেন জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস।

তিনি বলেন, অতীতে যে নিয়মে সনদ বা ভূমি রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া চলতো সেভাবেই চলছে। এখানে জেলা প্রশাসন কোন ধরণের হস্তক্ষেপ করেনি। না বুঝে কেউ কোন অভিযোগ করলে তা গ্রহণযোগ্য নয়। অযথা গুজবে কান না দেয়ারও আহবান জানান জেলা প্রশাসক।

খাগড়াছড়ি নিউজ/এস/রবিবার, ২৭ অক্টোবর ২০১৯ইং।।

মতামত...