খাগড়াছড়িতে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের ২য় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব ‘প্রবারণা পূর্ণিমা’ পালিত

নিজস্ব প্রতিবেদক।। আজ বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের ২য় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব ‘প্রবারণা পূর্ণিমা’। পাহাড়ে ধর্মীয় নানা আচারের মধ্য দিয়ে উদযাপিত হচ্ছে করছে দিনটি। ভিক্ষুদের তিন মাসের বর্ষাবাস শেষে প্রাণের আলোয় আলোকিত হয়ে “প্রবারণা পূর্ণিমা’ উদযাপনের মাধ্যমে অহিংসার বাণী ছড়িয়ে দিচ্ছেন বৌদ্ধ ধর্মাবলাম্বীরা।

দিনটি উপলক্ষে খাগড়াছড়িতে বিহারগুলোতে আয়োজন করা হয় ধর্মীয় অনুষ্ঠানের। ভোর থেকে বিভিন্ন বয়সের নারী-পুরুষেরা হাতে ফুল-ফল ও বিভিন্ন সামগ্রী আসতে শুরু করে। বুদ্ধ পুজা, পঞ্চশীল গ্রহন, সংঘ দান, অষ্ট পরিস্কার দান, হাজার বাতি দান ও ধর্ম দেশনার মধ্য দিয়ে শুরু হয় প্রবারণার আনুষ্ঠানিকতা।সকালে জেলা শহরের য়ংড বৌদ্ধ বিহারে প্রদীপ প্রজ্জ্বলন, বৌদ্ধ মূর্তি স্নান,, ফুল-ফল দিয়ে প্রার্থনা করেন বৌদ্ধ ধর্মাবলাম্বীরা। এসময় জগতের সকল প্রাণীর সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করা হয়। পরে সাধ্যমত ভান্তেদের ছোয়াইং (খাদ্য) প্রদান করা করেন তারা।

তবে একই ধর্মাবলাম্বী হলেও অনেকটা ব্যতিক্রমীভাবে মারমা জনগোষ্ঠীর মানুষ ওয়া বা ওয়াগ্যো প্যোয়ে উৎসব হিসেবে পালন করছে। বিকালে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করে নদীতে গিয়ে জল প্রদীপ ভাসানো হয়েছে। সন্ধ্যায় বিহারে ফিরে হাজার প্রদীপ জ্বালিয়ে পূজা শেষে রঙিন ফানুস উড়ানো হয়।

বৌদ্ধ ধর্মের অনুসারীরা জানান, হিংসা নয়, ভালবাসা দিয়ে জয় করতে হবে। প্রত্যাঘাত নয়, শান্তির পথে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। বড় করে তুলতে হবে সম্প্রীতি আর মিলনের বাণীকে। আমাদের যা কিছু ইতিবাচক আছে তাই তুলে ধরতে হবে।

খাগড়াছড়ি নিউজ/এস/রবিবার, ১৩ অক্টোবর ২০১৯ইং।।

মতামত...