খাগড়াছড়িতে সাহিত্যিক আজাদ বুলবুল স্মারক গ্রন্থের পাঠ উন্মোচন

নিজস্ব প্রDSC00330তিবেদক।।
পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক লেখক ড. আজাদ বুলবুলের ওপর প্রকাশিত স্মারক গ্রন্থের পাঠ উন্মোচন অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেছেন, তিন পার্বত্য জেলার সুদীর্ঘ রাজনৈতিক লড়াই-সংগ্রাম, বৈচিত্র্যময় শিল্প-সংস্কৃতি নিয়ে অনেক বেশী কাজ করার সুযোগ রয়েছে। এখানকার তরুণ সমাজ মনোযোগী হলে দেশে-বিদেশে সমাদৃত হবার মতো সাহিত্যচর্চার বিকাশ ঘটবে।

”পঞ্চাশের হাওয়ায় আজাদ বুলবুল” গ্রন্হের পাঠ উন্মোচন উপলক্ষে শুক্রবার সন্ধ্যায় খাগড়াছড়ি শহরের একটি কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত সভায় আলোচকরা এসব কথা বলেন।

খাগড়াছড়ির প্রবীণ শিক্ষাবীদ, সাবেক অধ্যক্ষ ও খাগড়াছড়ি সাহিত্য পরিষদের সভাপতি প্রফেসর বোধিসত্ত দেওয়ান’র সভাপতিত্বে ও পাহাড়ের বিশিষ্ট লেখক মথুরা বিকাশ ত্রিপুরার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় লেখক ড. আজাদ বুলবুলের উপস্থিতিতে তাঁর সাহিত্যকর্ম ও গবেষণার ওপর আলোচনা করেন।

আলোচনায় পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য খগেশ্বর ত্রিপুরা, মাটিরাঙ্গা ডিগ্রী কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রশান্ত ত্রিপুরা, সমাজকর্মী ও হেডম্যান সুইলাপ্রু চৌধুরী, পানছড়ি ডিগ্রী কলেজের অধ্যাপক আলী হোসেন ও শান্তি রঞ্জন চাকমা, প্রাবন্ধিক অংসুই মারমা, সনাকের প্রতিনিধি মো: জহুরুল আলম, খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাবের সা: সম্পাদক মুহাম্মদ আবু দাউদ, সাংবাদিক প্রদীপ চৌধুরী, খাগড়াছড়ি সাহিত্য পরিষদের সা: সম্পাদক মো: ইউসুফ, কবি ও আবৃত্তিকার চিংলামং চৌধুরী, সমাজকর্মী প্রমোদ বিকাশ ত্রিপুরা এবং জগদীশ রোয়াজা উপস্থিত ছিলেন।

আজাদ বুলবুল বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের আদিবাসী সম্প্রদায়কে আদিবাসী চোখ দিয়ে দেখতে হবে। তাহলে তাদের সুখ, দুঃখ, আচার-রীতি সর্ম্পকে ধারণা নেয়া যাবে। তিনি পার্বত্য চট্টগ্রামের যুবসমাজকে সাহিত্য অঙ্গণে এসে ভূমিকা রাখতে আহ্বান জানান।

খাগড়াছড়ি নিউজ/এনএম/১লা আগস্ট,২০১৫ইং।।

মতামত...