থানচিতে নিখোঁজের দুইদিন পর বিজিবি সদস্যের লাশ উদ্ধার

BGB member rescue picনিজস্ব প্রতিবেদক,বান্দরবান।। জেলার থানচি উপজেলায় নৌকা ডুবির দুই দিন পর নিখোঁজ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্য জুয়েল রানার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ শনিবার বিকেলে উপজেলার তিন্দু ইউনিয়নের বড় পাথর এলাকা থেকে প্রায় দেড় কিলোমিটার দূরে সাঙ্গু নদীতে ভাসমান অবস্থায় নিখোঁজ বিজিবি সদস্যের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। মৃত বিজিবি সদস্য জুয়েল রানার বাড়ি চুয়াডাঙ্গা জেলায়। জুয়েল রানার মৃতদেহ উদ্ধারের পর থানছির বলিপাড়া বিজিবি ক্যাম্পে নেয়া হয়েছে।

বান্দরবান বিজিবি সেক্টরের কর্মকর্তা মেজর জহির উদ্দীন বাবর জানান, আগামীকাল রোববার সকালে বান্দরবান বিজিবি সেক্টরে নিহত বিজিবি সদস্য জুয়েল রানার প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। পরে রানার মৃতদেহ তাঁর নিজ বাড়ি চুয়াডাঙ্গায় পাঠানো হবে।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে মিয়ানমার সীমান্তের থানছি বড় মদক এলাকা থেকে সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান শেষে ইঞ্জিন চালিত নৌকা করে বিজিবি সদস্যরা বান্দরবান ফিরছিলেন। সাঙ্গু নদীর তিন্দু বড় পাথর এলাকায় বিজিবি সদস্যদের বহনকারী নৌকাটি ডুবে যায়। সে থেকে বিজিবি সদস্য জুয়েল রানা নিখোঁজ হন। এঘটনায় বিজিবি সদস্যদের ব্যবহৃত চারটি অস্ত্র ও একশ রাউন্ড গুলিও খোঁয়া যায় বলে বিজিবি সূত্রে জানা গেছে।

খাগড়াছড়ি নিউজ/শাই/শনিবার; ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৫ইং-।।

মতামত...