ফুল ভাসিয়ে শুরু হলো বিঝু, সাংগ্রাই ও বৈসু উৎসব

Ful vasano pic 12-04-16স্টাফ রিপোর্টার।। প্রকৃতির অমোঘ নিয়ম মেনে প্রতিবছরই পাহাড়ে ফিরে আসে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সম্প্রদায়ের বিঝু, সাংগ্রাই ও বৈসু উৎসব।

ত্রিপুরাদের বৈসু, মারমাদের সাংগ্রাই ও চাকমাদের বিঝু এ তিন সম্প্রদায়ের উৎসবের নামের আদ্যক্ষর দিয়েই বৈসাবি উৎসবের নামকরণ। ফুল বিঝুতে নদীতে ফুল ভাসানো, সাংগ্রাইয়ে মারমাদের পানি খেলা আর ত্রিপুরাদের বৈসুতে গরয়া নৃত্য দিয়েই পাহাড়ের বর্ষবরণের বৈচিত্র্য।

বর্ষবিদায় ও বর্ষবরণ উপলক্ষে চাকমা, মারমা ও ত্রিপুরাসহ ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সম্প্রদায়েরা এ বৈসাবি উৎসব পালন করে থাকে। এটি তাদের প্রধান সমাজিক ও ধর্মীয় উৎসব।

আজ বুধবার ভোরে চাকমা সম্প্রদায়ের নদীতে ফুল ভাসানোর মধ্য দিয়ে পাহাড়ে এ উৎসবের সূচনা হলো।

খাগড়াছড়িতে ভোরের সূর্য আলো ছড়ানোর আগেই জেলা শহরের চেঙ্গী নদীর পাড়ে ঐতিহ্যবাহী পোশাকে সেজে হাতে বাহারী রঙের ফুল নিয়ে ভীড় জমায় চাকমারা। জল দেবীর উদ্দেশ্যে প্রার্থনা শেষে ফুল ভাসিয়ে থাকে শিশু-কিশোর, তরুণ-তরুণীসহ ছোট বড় সব বয়সী নারী-পুরুষেরা। ভাসিয়ে দেয় বিদায়ী বছরের জরাঝীর্ণতা আর দুঃখ কষ্টকে।

ফুল ভাসানো শেষে ফুল দিয়ে ঘর সাজাবে চাকমারা। তারপর থেকে চলতে থাকবে তিনদিনব্যাপী উৎসবের নানান আয়োজন।

বাংলা বর্ষের শেষ দু’দিন ও নববর্ষের প্রথম দিন, এই তিন দিন বিঝু উৎসব পালন করে চাকমারা। একই সময়ে শুরু হয় ত্রিপুরাদের বৈসু উৎসব আর চৈত্র্য সংক্রান্তির দিন মারমাদের শুরু হয় সাংগ্রাই উৎসব।

এসওয়াই/বুধবার, ১২ এপ্রিল ২০১৭ইং-।।

মতামত...