বাঘাইছড়িতে গোলাগুলিতে নিহতদের লাশ পরিবারে হস্তান্তর

SAMSUNG CAMERA PICTURES

SAMSUNG CAMERA PICTURES

নিজস্ব প্রতিবেদক ।। রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার বড়াদম গ্রামে গতকাল শনিবার ভোর রাতে নিরাপত্তাবাহিনীর সাথে গোলাগুলিতে নিহত ৫ জনের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।  রোববার বিকেল ৩ টায় খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের সদস্যদের লাশ হস্তান্তর করা হয়। এর আগে শনিবার রাতে ময়নাতদন্তের লাশগুলো খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে আনা হয়। এরআগে শনিবার ভোর রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বাঘাইছড়ি উপজেলার বড়াদম এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা  অভিযান চালালে সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের সাথে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এতে পিসিজেএসএস-একাংশ (এমএন লারমা) গ্রুপের ৪জনসহ ৫জন নিহত হয়। এসময় সেনাবাহিনীর এক কর্পোরাল আহত হয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতরা হলেন, খাগড়াছড়ির মহালছড়ি উপজেলার রাখাল টিলা এলাকার তাতু মণি ত্রিপুরা, গুইমারা উপজেলার মাস্টারপাড়া এলাকার খোকন ত্রিপুরা, রাঙ্গামাটির মারিশ্যার বালুখালী এলাকার কিরণ চাকমা ওরফে রূপায়ন, বাঘাইহাটের দীপু পাড়ার বাবুল চাকমা ও নানিয়াচরের রুবেল চাকমা ওরফে জ্যাকসন। এদের মধ্যে একজন স্থানীয় গ্রামবাসী বলে জানা গেছে।

বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) জাকির হোসেন বলেন, নিহতদের লাশ খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে ময়না তদন্ত শেষে তাদের পরিবারের সদস্যরা শনাক্ত করার পর পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে।

SAMSUNG CAMERA PICTURES

SAMSUNG CAMERA PICTURES

উল্লেখ্য, শনিরবার রাতে বড়াদাম এলাকায় সশস্ত্র অবস্থান নিয়েছিলো এমএন লারমা গ্রুপের সদস্যরা। গোপন সংবাদের সেনাবাহিনীর সদস্যরা অভিযান চালালে  অবস্থান টের পেয়ে তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। আত্মরক্ষার্থে  নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যরা পাল্টা গুলি ছুঁড়ে। প্রায় ঘন্টাব্যাপী ধরে চলা  গোলাগুলিতে ৫জন নিহত হয়। একই দিন সকালে ঘটনাস্থল থেকে ভারী বিদেশী অস্ত্রসহ গোলাবারুদ্ধ উদ্ধার করেছে নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যরা।

খাগড়াছড়ি নিউজ/শাই/এনএম/রোববার; ১৬ই আগস্ট, ২০১৫ইং-।।

মতামত...