বান্দরবানের লামায় পাহাড় ধ্বস: মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫, নিখোঁজ এক কিশোরী

বান্দরবান : অবিরাম বর্ষণে বান্দরবানের লামায় পাহাড় ধসে নিহতের সংখ্যা বেড়ে পাঁচজনে দাঁড়িয়েছে। এ ঘটনায় ফাতেমা আক্তার (১৬) নামে এক কিশোরী এখনো নিখোঁজ রয়েছে।

শনিবার ভোরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায়  নিহতরা হলেন— রোজিনা আক্তার (৩০), মো. সাজ্জাদ (৪), আমেনা বেগম (৩০) ও সাগর আহম্মদ (১৪)। ফায়ার সার্ভিসকর্মী ও স্থানীয়রা শনিবার সকালে প্রথমে এই চারজনের লাশ উদ্ধার করেন।

পরে দুপুরে সেনা সদস্যরা এসে বশির আহম্মদ (৬০) নামে আরেকজনের লাশ উদ্ধার করলেও তার মেয়ে ফাতেমা আক্তার (১৬) এখনো নিখোঁজ রয়েছে।

এদিকে পাহাড় ধ্বসের এ ঘটনায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় মাটির নিচ থেকে দেলু মিয়া (৭০) ও আরাফাত (১৮) নামে আরও দু’জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

লামা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) খালেদ মাহমুদ জানান, পাহাড় ধসের ঘটনায় মোট পাঁচজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখনো একজন নিখোঁজ থাকায় উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ রবিউল জানান, বৃষ্টির কারণে উদ্ধার তৎপরতা ব্যাহত হচ্ছে। পাহাড় ধসে চাপা পড়া আটজনের মধ্যে পাঁচজনের লাশ এবং দু’জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার বিকেল ৩টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত স্থানীয় লোকজন এবং ফায়ার সার্ভিসের সদস্যদের যৌথ উদ্ধার তৎপরতা চলছে।

খাগড়াছড়ি নিউজ/স্বডে/শাই/শনিবার-০১ আগস্ট ২০১৫ইং-॥

 

মতামত...