রামগড়ে ডাকাত দলের সদস্য সন্দেহে আটক-৩; পৌণে সাত ভরি স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধার

Snapshot - 1নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি ।। জেলার রামগড় বাজারে পৌণে সাত ভরি স্বর্ণালঙ্কার বিক্রিকালে আন্ত:জেলা ডাকাত দলের সদস্য সন্দেহে তিনজনকে আটক করেছে থানা পুলিশ। আজ শনিবার বিকেল আড়াইটার দিকে তাদের আটক করা হয়।

থানা পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রামগড় থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাঈন উদ্দিনের নেতৃত্বে  এসআই  মানিক মিয়াসহ একদল পুলিশ বাজার এলাকায় ওৎপেতে থাকে। স্বর্ণবিক্রির চেষ্টাকালে খাগড়াছড়ির কলমছড়ি গ্রামের মানিক্য মারমার ছেলে হেমন্ত মারমা (৩৫), ভুয়াছড়ির  আব্দুর রহমানের ছেলে মোতালেব (৩০) ও রামগড়ের বলিপাড়া গ্রামের মো: মোস্তফাকে (৪৪) আটক করে।

এসময় আটককৃতদের  কাছ থেকে দুই জোড়া  হাতের বালা, দুইটি নেকলেস, দুইটি আংটি, একজোড়া কানের দুলসহ ৬ভরি ১৩ আনা ৪ রত্তি স্বর্ণালংকার ও একটি নম্বরবিহীন মটর সাইকেল উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃত ব্যক্তিরা স্বর্ণের মালিকানার কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। ধারনা করা হচ্ছে উদ্ধারকৃত স্বর্ণালংকার ডাকাতি কিংবা চোরাই হতে পারে এবং তারা আন্ত:জেলা ডাকাত দলের সদস্য। প্রাথমিক অনুসন্ধানের ভিত্তিতে পুলিশ জানিয়েছে, ধৃত হেমন্ত মারমার বিরুদ্ধে খাগড়াছড়ি থানায় ৭টি চুরির মামলা রয়েছে এবং মোস্তফা অজ্ঞান পার্টির সদস্য হিসেবে সিলেটের একটি মামলায় জামিনে আছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্ততি চলছে।
উল্লেখ, গত সপ্তাহে জেলা সদরের বেশ ক’টি এলাকায় চুরির ঘটনা ঘটেছে।

খাগড়াছড়ি নিউজ/এটি/শাই/শনিবার;২৯ আগস্ট, ২০১৫ইং-।।

মতামত...